কুষাণ সাম্রাজ্য for all kind of competitive exam

Spread the love

সূচীপত্র

কুষাণ সাম্রাজ্য

কুষাণ সাম্রাজ্য

কুষাণ সাম্রাজ্য for all kind of competitive exam

কণিস্ক

  কুষাণ সাম্রাজ্য । কুষাণরা ছিল ইউ-চি নামে এক যাযাবর জাতির শাখা ।

প্রথম কদফিসিস বা কুজল কারা কদফিসিস ইউ চি জাতির সকল শাখাকে ঐক্যবদ্ধ করেন ।

পরবর্তী রাজা বিম কদফিসিস বা দ্বিতীয় কদফিসিস ই ভারতে প্রথম কুষাণ সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন । তিনি শিবের উপাসক ছিলেন । তার অন্যতম উপাধি ছিল “মহেশ্বর” ।

প্রথম কনিস্কঃ-

বিম কদফিসিসের পর প্রথম কণিস্ক কুষাণ সাম্রাজ্যের সিংহাসনে বসেন । তিনি কুষাণ বংশের সর্বশ্রেস্ট সম্রাট ছিলেন ।

তিনি ৭৮ খ্রিঃ সিংহাসনে বসেন এবং “শকাব্দ” নামে একটি সম্বৎ বা অব্দ প্রবর্তন করেন ।

পুরুষপুর ছিল তার রাজধানী ।

ঐতিহাসিক স্মিথ এর মতে বৌদ্ধধর্মের ইতিহাসে তিনি “দ্বিতীয় অশোক” এর ভূমিকা পালন করেন ।

রাজধানী পুরুষপুর বা পেশোয়ারে বুদ্ধদেবের দেহাবশেষের উপর তিনি একটি বিশাল বহুতলবিশিস্ট মঠ ও চৈত্য নির্মান করেন ।

 

বিখ্যাত বৌদ্ধপন্ডিত বসুবন্ধুর নেতৃত্বে তিনি কাশ্মীরে (মতান্তরে জলন্ধরে) চতুর্থ বৌদ্ধ সংগীতির আয়োজন করেন ।

এই অধিবেশনে বৌদ্ধ ধর্মগ্রহ্নগুলি সংস্কৃত ভাষায় অনুবাদের ব্যাবস্থা করা হয় । তিনমাসব্যাপী এই অধিবেশনে গৃহীত ও সংকলিত ত্রিপিটকের ব্যাখ্যাসমূহ মহাবিভাষা নামে পরিচিত ।

বিখ্যাত কবি , দার্শনিক , সংগীতজ্ঞ পন্ডিত অশ্বঘোষ , দার্শনিক নাগার্জুন , পন্ডিত বসুমিত্র , আয়ুর্বেদাশাস্ত্র চরক তার রাজসভা অলঙ্কৃত করতেন ।

তাকে “গুপ্ত নবজাগরনের পুরোধা” হিসেবে চিহ্নিত করা যায় ।

wbcs preliminary preparation

বৈদেশিক সম্পর্ক

কুষাণ সাম্রাজ্য for all kind of competitive exam

কনিস্কের স্বর্ণমুদ্রা

সুবর্ণ দ্বীপ – অর্থাৎ সুমাত্রা , জাভা , বোর্নিও প্রভৃতি অঞ্চলের সংগে ভারতে বানিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয় ।

কুষাণ সাম্রাজ্য

জনৈক অজ্ঞাতনামা গ্রীক নাবিক রচিত “পেরিপ্লাস অফ দ্য ইরিথ্রিয়ান সী” নামক গ্রহ্ন থেকে তৎকালীন ভারতবর্ষের ব্যবসা বানিজ্যের বিস্তৃত বিবরন পাওয়া যায় ।

কুষাণ রাজারাই এদেশে সর্বপ্রথম স্বর্ণমুদ্রার প্রচলন করেন ।

রেশম পথ বা সিল্ক রুট কুষাণ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় শুল্ক আদায় করে কুশাণরা প্রচুর লাভবান হয় ।

 

সাংস্কৃতিক উন্নয়ন

কুষাণ যুগ “ধর্মীয় পুনরুত্থানের যুগ” নামে পরিচিত ।এই যুগে শৈব , বৈষ্ণব ,কার্তিকেয় প্রভৃতি ধর্মের উদ্ভব ও বিকাশ পরিলক্ষিত হয় ।

এই যুগের উল্লেখযোগ্য কাব্যের মধ্যে অশ্বঘোষ রচিত ‘বুদ্ধচরিত’ , ‘সুত্রালঙ্কার’, ‘বজ্রসূচী’ ও ‘সৌন্দরানন্দ’ বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য ।এছাড়াও নাগার্জুন রচিত শত-সহস্রিকা প্রজ্ঞা পারমিতা, মাধ্যমিক সূত্র উল্লেখযোগ্য । তার রচিত “মাধ্যমিক সূত্র’ প্রকৃতপক্ষে আপেক্ষিক তত্বের আলোচনা ।

 

কুষাণ সাম্রাজ্যের পতন

কণিস্কের পর বাশিস্ক , হুবিস্ক , দ্বিতীয় কণিস্ক ও বাসুদের সিংহাসনে বসেন । খ্রিস্টীয় নবম শতকে তাদের অস্তিত্ব সম্পূর্ণ বিলুপ্ত হয় ।

 

 

 

 

wbcs history mock test

RRB group d preparation

wbcs online book store

wbcs guide books

IAS preliminary exam guide

ips preliminary exam guide

wbcs online help

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.