আগামীকাল কেউ বাড়ি থেকে বের হবেন না । সারা দেশে ওষুধ স্প্রে করা হবে ! জানুন সত্য

Spread the love
coronavirus viral message
coronavirus viral message

আগামীকাল কেউ বাড়ি থেকে বের হবেন না । সারা দেশে ওষুধ স্প্রে করা হবে ! জানুন সত্য

Whatsapp আর ফেসবুক এই দুই ইন্টারনেটের দিকপাল একদিকে মানুষের জীবনে দেয় বিনোদনের ছোঁয়া অন্যদিকে মানুষের মনকে করে তোলে মিথ এবং মিথ্যাচারের আঁতুড়ঘর । আজ আমরা তেমনই একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব ।

প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের সতর্কতায় একদিন ব্যাপী জনতা কার্ফু এর আবেদন রেখেছেন । আগামী ২২ শে মার্চ তিনি আবেদন করেছেন সকাল ৭ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত ঘরে থাকার অনুরোধ করেছেন । তিনি বলেছেন খুব প্রয়োজন না পরলে বাড়ির বাইরে না বের হতে ।

আর তারপরই whatsapp এবং facebook জুড়ে সত্য মিথ্যা সকল মেসেজ ছড়িয়ে পড়েছে । আজ আমরা এই লেখাটি তেমনই কয়েকটি মেসেজ যাচাই করবো আর দেখে নেব সেগুলি কতটা সত্যি !

প্রথম মেসেজটি একটু দেখে নিন –

করোনার মুক্তি দিবস
তারিখ: – 22/03/2020
রবিবার দুপুর ১ টা নাগাদ বাড়ির সমস্ত সদস্যকে ঘরের ছাদ বা ছাদের বাইরে রোদে দাঁড়িয়ে থাকতে হবে, যা করোনার ভাইরাসের মূল দূর করবে।পুরো ভারতে এক সময় করোনাকে নির্মূল করার জন্য এটি সেরা উপায়।কারণ এই ভাইরাসটি 26 ডিগ্রির উপরে তাপমাত্রায় পুড়ে ছাই হয়ে যাবে ,22 তারিখে দুপুরবেলায় তাপমাত্রা 36 ডিগ্রি হবে
তাই প্রস্তুত হোন, এই বার্তাটি সর্বত্র পাঠান
জয় হিন্দ, জয় ভারত ????????????????

-Whatsapp Viral SMS

প্রথমেই বলে রাখি এই মেসেজটি সম্পুর্ন মিথ্যা । করোনা ভাইরাস ৭০ ডিগ্রির বেশি উষ্ণতা হলে তবেই মারা যায় । তবে এটা ঠিক ২৩ ডিগ্রির বেশি উষ্ণতাতে তাদের বিস্তার কমে যায় । তাই ২৬ ডিগ্রি উষ্ণতাতে পুড়ে ছাই হওয়ার উদ্ভট ছাড়া আর কিছুই নয় । তাই এই মেসেজটি সম্পুর্ন মিথ্যা ।

এবার চলুন দেখে নিন পরের মেসেজ

প্রিয়  সাথী বৃন্দ -মা, বোন এবং পুরোহিতদের বলছি ভোর চারটে , দুপুর একটা এবং সন্ধ্যা  সাড়ে 6থেকে 7টার মধ্যে  ঠাকুর  ঘর সারবেন , ঐ সময় জোরসে শাঁখ বাজান ,শাঁখের ধ্বনিতে কোরোনা  ভাইরাস  নষ্ট হয়ে যায় , সে কারনে  কোরোনা ভাইরাস  গ্রামে-গঞ্জে বিলুপ্ত  তার প্রমাণ  মিলছে হাতে নাতে  আর শহরে মানুষেরা একই সঙ্গে  যেন তা পালন করেন এবং  অতি শীঘ্রই  উপকার  পাবেন।

– Whatsapp Viral SMS

শাখের ধ্বনিতে করোনা ভাইরাস নষ্ট হয়না । এমনকি কোনধরনের জীবাণুই শঙ্খ ধ্বনিতে নষ্ট হয় না । তাই এটা সম্পুর্ন ভুল ধারণা । যদি শঙ্খের আওয়াজে করোনা ভাইরাস মারা যেত তাহলে লক্ষ্ কোটি টাকা খরচ করে বিজ্ঞানিরা রাত দিন এক করে মাথার ঘাম পায়ে ফেলতেন না ।

আর গ্রামে গঞ্জে এখনও এই ভাইরাস পাওয়া যায়নি তার মূল কারন হল করোনা ভাইরাস আমাদের দেশে সৃষ্টি হয়নি । এটি চীনে প্রথম দেখা যায় । তাই যারা বিদেশি অথবা বিদেশে যাতায়াত করে তাদের থেকেই এই ভাইরাস আমাদের দেশের মানুষে ছড়িয়েছে । আর সেক্ষেত্রে যেহেতু শহরাঞ্চলে বিদেশিদের আনাগোনা বেশি এবং যারা বিদেশ যাতায়াত করেন তাদের বেশিরভাগ শহরে থাকেন তাই শহরে এর প্রকোপ বেশি ।

কিন্তু গ্রামে যে এর প্রভাব পড়বে একথা জোর দিয়ে বলা যায় না । কারন বর্তমান বিশ্বে অনেক গ্রামে গঞ্জের মানুষও বিদেশে কাজের খোঁজে যান । তাই করোনা ভাইরাস তাদের মাধ্যমেও আমাদের দেশের গ্রামে গঞ্জে ছড়াতেই পারে । তাই সচেতন থাকুন । সরকার যেসকল নিয়ম পালন করতে বলেছেন সেগুলি অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন । তাই বলা যায় উপরোক্ত Whatsapp মেসেজটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ।

আরও পড়ুনঃ জনতা কার্ফুর কি প্রয়োজন আছে ? জানুন সত্য !

প্রথম জনতা কার্ফু ঘোষণার পরে পরেই এরকম হাজারো মিথ এবং মিথ্যায় ভরা মেসেজ ছড়িয়ে পড়েছে । তেমনই আর কয়েকটি মেসেজ হল –

আগামী ২২ শে মার্চ কেউ বাড়ি থেকে বের হবেন না । সরকারের তরফ থেকে করোনা ভাইরাস মারার সারা দেশে ওষুধ ছড়াবে ।

অথবা

আগামী ২২ শে মার্চ সকলে ঘরের মধ্যেই থাকুন । কেউ বাইরে বের হবেন না । সরকারের তরফে করোনা ভাইরাস মারার গ্যাস স্প্রে করা হবে ।

স্পষ্ট করেই বলছি এখনও পর্যন্ত আজ যখন ২১ শে মার্চ এই লেখাটি প্রকাশ হচ্ছে করোনা ভাইরাসের কোন ওষুধ বের হয়নি । হ্যা ! এটা ঠিক কিছু দেশ দাবী করেছে তাঁরা এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করে ফেলেছে । কিন্তু এখনও তা ১০০ % কোন দাবীই প্রমান হয় নি । তাই বলা যায় এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের কোন মেডিসিন বা ভ্যাকসিন তৈরি হয় নি । আর এর সাথে এটাও বলে রাখি সরকারের তরফ থেকেও আগামী ২২ শে মার্চ কোনও ওষুধ স্প্রে অথবা মেডিসিন প্রয়োগ করা হবে এমন কোন ঘোষণা করা হয়নি । তাই বলা এই সব মেসেজগুলি সম্পুর্ন রুপে মিথ্যা ।

হ্যা ! এটা সত্যি যে প্রধানমন্ত্রী আগামী ২২ শে মার্চ ভারত বাসীর কাছে অনুরোধ করেছেন ঘরের মধ্যেই থাকতে । তিনি এটিও বলেছেন যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে চলেছেন যেমন ডাক্তার নার্স এদের সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন এর জন্য বাড়ির মধ্যেই কাঁসর ঘণ্টা বাজান ।

পরিশেষে একটা কথায় বলবো Whatsapp বা Facebook এ যে মেসেজ দেখেন তার সবটাই সত্যি নয় । আগে মেসেজটির তথ্য যাচাই করুন । তারপরেই সেটি বন্ধুদের শেয়ার করুন । লেখাটি শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য ধন্যবাদ ।

আপনার মতামত জানাতে নীচে কমেন্ট করুন । লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন ।

সকল খবর সবার আগে এখানে ক্লিক করুন

CLICK HERE TO GET ENGLISH NEWS

সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ